মানিক মিয়া ছিল ৬ দফা আন্দোলনের প্রুদা এম.এ জলিল

0
84

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ-দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধুর মানিক ভাই বাঙালিদের মুক্তির সনদ বঙ্গবন্ধুর ঘোষিত ৬ দফার সমর্থক ও ইত্তেফাকের মাধ্যমে বহুল্য প্রচারিত করেন ৬ দফাকে। তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার ৫৩তম মৃত্যু বার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ এক আলোচনা সভার আয়োজন করেছে আজ ১লা জুন ২০২২ বিকাল ৫ ঘটিকায় মেহেরবা প্লাজা ১৫ তলা, তোপখানা রোড, ঢাকা। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল।

আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন কাজী আরেফ ফাউন্ডেশনের সভাপতি কাজী মাসুদ আহমেদ, তৃণমূল বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আক্কাছ আলী খান, বাংলাদেশ উন্নয়ন পার্টির সভাপতি সৈয়দ মোখলেসুর রহমান, বিশিষ্ট আইনজীবী এ্যাডভোকেট মেনুয়াল সরকার, নাগরিক ফোরামের সভাপতি শহীদুন্নবী ডাবলু, বরিশাল বিভাগ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ.স.ম মোস্তফা কামাল, বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সহ সভাপতি মোহাম্মদ আলী, সাধারণ সম্পাদক সমির রঞ্জন দাস ও দপ্তর সম্পাদক কামাল হোসেন প্রমুখ।

সভাপতির ভাষনে এম এ জলিল বলেন দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক সাহসী ভূমিকা রেখেছেন এবং আইয়ুব সাহী সামরিক তন্ত্রের বিরুদ্ধে ভূমিকা রেখেছেন বিশেষভাবে বঙ্গবন্ধুর ঘোষিত ৬ দফার পক্ষে ইত্তেফাকের মাধ্যমে সমর্থন যুগিয়েছেন বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন সেই ঐক্যবদ্ধ জাতিকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন। উপনেবেশিক পাকিস্তান আমলে মানিক মিয়া যেভাবে কলাম লেখে ইত্তেফাকের মাধ্যমে মানুষকে সাহস যুগিয়েছিলেন স্বাধীনতার জন্য একই ভাবে বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর বঙ্গবন্ধুর হত্যার প্রতিবাদ করেছেন লন্ডনে সাংবাদিক আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী এবং মানিক মিয়ার মত কলাম লেখে তিনি বাঙালি জাতিকে জাগরণ সৃষ্টি করেছেন সেই জাগরিত জাতিই বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার করেছে ৭১ এর মানবতা বিরোধী ঘাতকদের বিচার করেছে এবং সীমান্ত সমস্যার সমাধান করেছেন, সমুদ্র সীমানা নির্ধারণ করেছেন,

ভারতের সাথে পানি চুক্তি করেছেন ও পার্বত্য চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যারা সন্ত্রাসী ভূমিকা রেখেছেন তাদেরকে বাংলাদেশের সংবিধানের পক্ষে শান্তির পক্ষে এনেছেন পরবর্তীতে পদ্মা সেতুসহ অনেক মেঘা প্রজেক্ট দ্বারা দেশের উন্নয়ন করেছেন সমৃদ্ধ করেছেন দেশকে।এম এ জলিল আরো বলেন- আসুন আমরা যেভাবে তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া পাকিস্তানের সাম্প্রদায়িক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন সেই একই ভাবে বাঙালি জাতিকে আবার ঐক্যবদ্ধ করি এই ঐক্যবদ্ধ জাতিই পারে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আকাঙ্খিত বাংলাদেশ গড়তে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আজকের সভা থেকে আমাদের দাবী ৪ কোটি বেকার যুবকদের ব্যাংক ঋণের মাধ্যমে কর্মসংস্থান করুন এবং দেশ থেকে সকল দুরাচার, অত্যাচার, দূর করে দেশকে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, দুর্নীতি, ঘুষ, বিদেশে টাকা পাচার তালেবান কিশোর গ্যাং মুক্ত উন্নত পরিবেশের দেশ গড়ি তবেই স্বার্থক হবে আজকের আলোচনা।  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে